• শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৪:২১ অপরাহ্ন
  • [gtranslate]

রামগঞ্জে পাউবো’র খালের উপর চেয়ারম্যানের পাকা দোকানঘর নির্মাণ

Reporter Name / ২০৯ Time View
Update : বৃহস্পতিবার, ১৩ জুলাই, ২০২৩

নিজস্ব প্রতিনিধি, রামগঞ্জ কন্ঠ, রামগঞ্জঃ লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জে বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধের পাশে সম্পত্তিতে ফাউন্ডেশন নিয়ে অবৈধ ভাবে পাকা দোকানঘর নির্মাণের অভিযোগ উঠেছে ইউপি চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান মিজানের বিরুদ্ধে। খবর পেয়ে পানি উন্নয়ন বোর্ড কতৃপক্ষ ঘটনাস্থলে এসে নির্মানকাজ বন্ধ করে দিয়েছেন।

সূত্রে জানা যায়, রামগঞ্জ শিশু পার্ক সংলগ্ন ব্রিজের পূর্ব- দক্ষিণ পার্শ্বে ওয়াবদা সড়কে পাউবোর খাল পাড়ে দখল সূত্রে স্থানীয় আবদুর রহমান থেকে পানি উন্নয়ন বোর্ডের প্রায় ৪০ ফুট জায়গা ক্রয় করেন, ৭নং দরবেশপুর ইউপি চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান মিজান। ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে ওই স্থানে ফাউন্ডেশন নিয়ে পাকা দোকান ঘর নির্মাণের কাজ বীরদর্পে চালিয়ে যাচ্ছিলেন তিনি। পরে খবর পেয়ে পানি উন্নয়ন বোর্ড কতৃপক্ষ নির্মানকাজ বন্ধ করে দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন পাউবো’র শাখা কর্মকর্তা (এসও) মো. শাকিল।

ক্ষোভ প্রকাশ করে কয়েকজন জানান, সরকারি সম্পত্তিতে পাকা ভবন নির্মান, এ আর নতুন কি। যে যেভাবে পারছে, খাল পাড় দখল করে পাকা ইমারত নির্মান করছে। কতৃপক্ষ দেখেও যেন দেখনা।

সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়, রামগঞ্জ দক্ষিণ বাজার ওয়াপদা কলোনী সংলগ্ন এবং পাউবো’র এলাকার আশেপাশের সম্পত্তিসহ সোনাপুর পশ্চিম বাজার, চৌধুরী বাজার, দাসপাড়া, পদ্মা বাজার ও রসুলপুর বাজার এলাকায় পাউবো বাঁধের দুই পাশের সম্পত্তি দখলে নিয়ে অর্থ বাণিজ্যে ব্যস্ত হয়ে পড়েছে একাধিক মহল।

এ বিষয়ে আবদুর রহমান জানান, দখল সূত্রে আমি ৪০ফুট জায়গা মিজান চেয়ারম্যানের নিকট ৪ লক্ষ ৫০ টাকা বিক্রি করি। পানি উন্নয়ন বোর্ডের জায়গায় ছাদ কিংবা দোতলা ভবন করার নিয়ম নেই। শুনেছি চেয়ারম্যান নাকি দোতলা করবেন। এখনতো কাজ বন্ধ। পানি উন্নয়ন বোর্ডের লোকজন কাজ বন্ধ করে দিয়েছেন।

পাকা দোকানঘর নির্মানের কথা স্বীকার করে ইউপি চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান মিজান বলেন, দীর্ঘদিন থেকে আবদুর রহমান এখানে দোকানদারি করে আসছে। আমি তার থেকে জায়গা কিনে নিয়েছি। আমার কাছে কাগজপত্র আছে।

এ ব্যাপারে পাউবো’র শাখা কর্মকর্তা (এসও) মো. শাকিল জানান, চেয়ারম্যান সাহেবকে কাজ বন্ধ রাখতে বলছি, উনি কাজ বন্ধ রাখছে। পানি উন্নয়ন বোর্ডের জায়গায় পাকা ভবন করার কোন নিয়ম নেই।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category