• শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৫:২৮ অপরাহ্ন
  • [gtranslate]

রামগঞ্জে ভোট কেন্দ্রগুলোতে সিসি ক্যামেরা স্থাপনের দাবি স্বতন্ত্র প্রার্থী পবনের

Reporter Name / ৮০৫ Time View
Update : সোমবার, ২৫ ডিসেম্বর, ২০২৩

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ লক্ষ্মীপুর-১ (রামগঞ্জ) আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী হাবিবুর রহমান পবন (ঈগল) ভোট কেন্দ্রগুলোকে ঝুঁকিপূর্ণ ঘোষণাসহ সিসি ক্যামেরা স্থাপনের দাবি জানিয়ে লিখিত আবেদন করেছেন। সোমবার (২৫ ডিসেম্বর) দুপুরে প্রধান নির্বাচন কমিশনারসহ ৯টি দপ্তরে এ আবেদন করেন। বিকেলে পবন সাংবাদিকদের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

পবন আবেদনে উল্লেখ করেন, ‘আমি লক্ষ্মীপুর-১(রামগঞ্জ) আসন থেকে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে ঈগল মার্কা নিয়ে নির্বাচনে অংশ নিয়েছি। আমার প্রতিপক্ষ নৌকা প্রতীকের প্রার্থী মোঃ আনোয়ার হোসেন খান অনেক কালো টাকার মালিক এবং একজন উচ্চমানের সন্ত্রাসী। কালো টাকা ব্যবহার করে তিনি আসন্ন নির্বাচনকে প্রভাবিত করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। সে কারণে আসনের প্রতিটি ভোট কেন্দ্রে নিরাপত্তা জোরদার ও সিসি ক্যামরা স্থাপনের প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ চাই’।

স্থানীয় ভাবে জানা গেছে, লক্ষ্মীপুর-১ (রামগঞ্জ) আসনে নৌকা নিয়ে লড়ছেন বর্তমান সংসদ সদস্য ড. আনোয়ার হোসেন খান। স্বতন্ত্র প্রার্থী পবনের পক্ষে স্থানীয় আওয়ামী লীগের একটি অংশ কাজ করছেন। এরমধ্যে জেলা ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র কয়েকজন জনপ্রিয় নেতা রয়েছেন। তারাও আসনটি থেকে দলীয় মনোনয়ন চেয়েছিলেন। দলীয় মনোনয়ন না পাওয়া নির্বাচনে অংশ না নিলেও পবনকে সমর্থন জানিয়েছেন তারা। এ আসনে আনোয়ার খান আওয়ামী লীগের একটি অংশকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন। এখানে উপজেলা ও পৌর আওয়ামী লীগসহ অঙ্গসংগঠনের মধ্যে কোন্দল দৃশ্যমান।

সিসি ক্যামেরা স্থাপনের আবেদনের বিষয়ে জানতে দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনের লক্ষ্মীপুর জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা প্রশাসক সুরাইয়া জাহান এবং সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা ও রামগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শারমিন ইসলামকে একাধিকবার কল করলেও তারা রিসিভ করেননি।

প্রসঙ্গত, লক্ষ্মীপুর-১ আসনে ২ লাখ ৬১ হাজার ৭৯৩ জন ভোটার রয়েছেন। এরমধ্যে পুরুষ ভোটার ১ লাখ ৩৪ হাজার ৮৩৪ জন ও নারী ভোটার ১ লাখ ২৬ হাজার ৯৫৯ জন। উপজেলার ১০টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভা নিয়ে গঠিত এ আসনে ভোট কেন্দ্রের সংখ্যা ৮৫ টি। আনোয়ার খান ও পবন ছাড়াও এ আসনে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন জাতীয় পার্টির মাহামুদুর রহমান (লাঙ্গল), বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের নিয়াজ মাখদুম ফারুকী (মোমবাতি), ন্যাশনাল পিপলস পার্টির মোশাররফ হোসেন (আম), স্বতন্ত্র প্রার্থী এম এ গোফরান (কেটলি)।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category